Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
Filter by Categories
Lead 1
Lead 2
Lead 4
Lead 5
Lead3
অন্য পত্রিকার খবর
অন্য পত্রিকার খবর ১
অন্য পত্রিকার খবর ২
অন্য পত্রিকার খবর ৩
আরও সংবাদ
ইসলাম
বিবিধ
ভিডিও নিউজ
মৌলিক




তিন সিটিতেই নির্বাচন বর্জনের অভাস বিএনপির(ভিডিও)


প্রকাশিত :০৭.০৬.২০১৮

নিউজ ডেস্ক: সম্প্রতি খুলনা সিটি নির্বাচনে পরাজয়ের পর বাকি সিটির নির্বাচনগুলোতে অংশ নেয়া না নেয়া নিয়ে দ্বিধায় পড়েছে বিএনপি। এমতাবস্থায় গাজীপুর সিটি নির্বাচনে খুলনার মতো পরিস্থিতি হলে পরের তিনটি সিটি নির্বাচন যথাক্রমে সিলেট, রাজশাহী এবং বরিশাল সিটি নির্বাচন বর্জন করবে বলে অভাস দিয়েছেন বিএনপির শীর্ষস্থানীয় নেতারা।

এ প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, গাজীপুর সিটি নির্বাচন দেখেই আমরা পরবর্তী সিটি নির্বাচনগুলোতে অংশগ্রহণ করবো কি-না সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব। তিনি বলেন, ‘গাজীপুর নির্বাচন যদি খুলনা সিটি নির্বাচনের স্টাইলে হয়, তাহলে এই সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন নয়, সেই পথেই হয়তো আমাদের হাঁটতে হবে।’

বিএনপির একাধিক নেতার অভিযোগ, খুলনায় পুলিশ এবং প্রশাসনের মাধ্যমে ত্রাস ও ভীতি সৃষ্টি করে সুনির্দিষ্ট কয়েকটি কেন্দ্রে নজিরবিহীন কারচুপি করা হয়েছে। এছাড়া ভোটের দিন ভয়ে অনেক ভোটার ভোট কেন্দ্রে যেতে পারেনি। তাই গাজীপুরেও যদি সেরকম পরিস্থিতি তৈরি হয় তবে বর্জন ফর্মুলা অনুসরণ করা হবে।

যদিও এর আগেও ভোটে কারচুপির অভিযোগ এনে বিভিন্ন সময় নির্বাচন বর্জন করলেও খুলনা সিটি নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ সত্ত্বেও ভোট বর্জন করার সিদ্ধান্ত নেয়নি। কেন? এ প্রসঙ্গে বিএনপির একাধিক শীর্ষ নেতা কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। তারা বলছেন, এটা কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত।

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের একজন নেতা বলেন, নির্বাচনে জয়-পরাজয় থাকবে। কথায় আছে- যেমন কর্ম তেমন ফল। বিএনপির ক্ষেত্রেও তা-ই ঘটেছে। নির্বাচন বর্জনের হুমকি বিএনপির চরিত্রের নতুন কোনো অধ্যায় নয়। তারা জনসমর্থন হারিয়ে দিশেহারা।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘খুলনা নির্বাচনে কারচুপির কথা যারা বলে তারা অর্বাচীন। কারণ, নির্বাচন পর্যবেক্ষকরা বলেছেন, নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়েছে। এখন দেশে উন্নয়নের পক্ষে জোয়ার এসেছে। তাই ভোটাররা আওয়ামী লীগকেই ভোট দিচ্ছে। গাজীপুরে খুলনার চেয়ে বেশি ভরাডুবি হবে বিএনপির। এজন্য তারা এখন থেকেই নানা অজুহাত খুঁজছে। বিএনপি হারলেই কারচুপির অভিযোগ করে, এটাই তাদের স্বভাব।

বিএনপির অন্য একটি সূত্র বলছে, অভ্যন্তরীণ কোন্দল এবং জামায়াতের অনড় অবস্থানের কারণেই তিন সিটিতে বিকল্প খুঁজছে বিএনপি। রাজশাহী, সিলেট এবং বরিশালেই বিএনপির মেয়র পদ নিয়ে মতবিরোধ এখন প্রকাশ্য রূপ পেয়েছে। আবার রাজশাহী এবং সিলেটের যেকোন একটি সিটি করপোরেশন মেয়র পদ চাইছে জামায়াত। জামায়াতে পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, গাজীপুরে সরে গেলেও এই দুটি থেকে তারা কোনো অবস্থাতেই সরবে না।

প্রসঙ্গত, আগামী ২৬ জুন গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবার কথা রয়েছে। অন্যদিকে আগামী ৩০ জুলাই সিলেট, রাজশাহী এবং বরিশাল সিটি নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন।



Designed By BanglaNewsPost