Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
Filter by Categories
English
Lead 1
Lead 2
Lead 4
Lead 5
Lead3
অন্য পত্রিকার খবর
অন্য পত্রিকার খবর ১
অন্য পত্রিকার খবর ২
অন্য পত্রিকার খবর ৩
আরও সংবাদ
ইসলাম
বিবিধ
ভিডিও নিউজ
মৌলিক
শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন :

কূটনীতিকদের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ বিএনপির নেতৃত্ব
গোলাম আযমের পথেই তারেক রহমান!(ভিডিও)


প্রকাশিত :১৪.০৫.২০১৮

নিউজ ডেস্ক: বিএনপির বর্তমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান লন্ডনে বসবাসরত তারেক রহমানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দেশের গোয়েন্দাদের সাথে গোপন বৈঠক, বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে ইন্ধন দান ও বিতর্কিত বক্তব্যের কারণে যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের কাছে তার নেতৃত্ব প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে আছে। পরবর্তীতে দুটি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত  আসামি হিসেবে এবং সর্বশেষ নাগরিকত্ব বর্জন বিতর্কের মাঝে ব্রিটেনের কোম্পানিজ হাউজের তালিকায় তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান “ব্লু এন্ড হোয়াইট” -এর নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় প্রদত্ত তথ্যে তার ব্রিটিশ নাগরিকত্বের প্রমাণ ফাঁস হলে বাংলাদেশে বিএনপির নেতৃত্ব দানের অধিকার ও যোগ্যতা নিয়ে দেশে ও বিদেশে বিতর্ক আরো বহুগুনে বৃদ্ধি পায়।

১৩ মে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশস্থ বিদেশি দূতাবাসের প্রতিনিধিদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত বৈঠকে একজন কূটনীতিক বলেন, ‘লেট তারেক কাম, অ্যান্ড টেক দ্য লিডারশিপ (তারেক দেশে এসে নেতৃত্ব নিক)।’বৈঠকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারতসহ ১৭ টি দেশের কূটনীতিকরা উপস্থিত ছিলেন। অপর এক কূটনীতিক প্রশ্ন করেন, দল চালাতে তারেক দেশে আসবেন কবে? কেনো তিনি দেশে এসে আইনের মুখোমুখি হচ্ছেন না। তারেক যেহেতু দেশে আসছেন না, সেহেতু দেশে যারা আছেন তাদের কেউ বিএনপির হাল ধরতে সাহস পাচ্ছে না কেন? এসব প্রশ্নের উত্তরে বিএনপি নেতারা বেশ বিব্রত হন।

এ পসঙ্গে বিএনপির একজন সিনিয়র নেতা বলেন, তারেক জিয়ার  আনুষ্ঠানিক নেতৃত্বে থাকা না থাকা একটা বড় ইস্যু হিসেবে দেখা দিয়েছে। বিষয়টি আর এড়িয়ে যাবার উপায় নেই।  আমরা এ বিষয়ে বেগম জিয়ার পরামর্শ নিয়ে শীঘ্রই আলোচনায় বসবো। মূল নেতৃত্বে থাকলেও তারেক জিয়াকে দৃশ্যমান না রেখেও দল পরিচালনা করা সম্ভব।  উদাহরণ হিসেবে তিনি জামায়াতের প্রয়াত সাবেক আমির গোলাম আযমের কথা স্মরণ করে বলেন, ১৯৭৩ সালের ১৮ জানুয়ারি এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে তার নাগরিকত্ব বাতিল করা হলেও তখন আব্বাস আলী খানকে ভারপ্রাপ্ত আমির বানিয়ে ১৯৯৪ সালে বিএনপি সরকার তার নাগরিকত্ব ফিরিয়ে দেয়ার পূর্ব পর্যন্ত এই দীর্ঘ সময় তিনিই দল পরিচালনা করেছেন। কাজেই বিএনপিও ইচ্ছে করলে সেই কৌশল অনুসরণ করতে পারে।

সূত্র মতে, বিষয়টি নিয়ে কারাগারে আটক বেগম জিয়ার সাথে আলোচনার পর স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বিষয়টি উপস্থাপন করা হবে এবং তারেক জিয়াকে সেই প্রস্তাব পেশ করা হবে। এছাড়া তারেক জিয়ার সম্মতিতেই অন্য কাউকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হবে। তবে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেকের পরামর্শেই দল পরিচালনা করবেন। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, বিষয়টি আগেই তারেক রহমানকে ইঙ্গিত দেয়া হলে তিনি তাতে তেমন আপত্তি করেননি। সব বিবেচনা করে সঠিক সিদ্ধান্ত নিবেন বলেই জানান তিনি।

বিষয়টি প্রকাশ হয়ে পড়লে রাজনৈতিক মহলে বেশ কৌতুহল তৈরি হয়েছে। অনেকেই বলছেন রাজনৈতিকভাবে তারেক রহমান অনেক রকম অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়েছেন। সর্বশেষ তাকে গোলাম আযমের অনুসৃত পথেই হাটতে হচ্ছে।

শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন :


Designed By BanglaNewsPost