Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
Filter by Categories
English
Lead 1
Lead 2
Lead 4
Lead 5
Lead3
অন্য পত্রিকার খবর
অন্য পত্রিকার খবর ১
অন্য পত্রিকার খবর ২
অন্য পত্রিকার খবর ৩
আরও সংবাদ
ইসলাম
বিবিধ
ভিডিও নিউজ
মৌলিক
শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন :

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্মিত হলো এশিয়ার সর্ববৃহৎ ‘ওয়াই’ সেতু


প্রকাশিত :১৯.০৯.২০১৮

নিউজ ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তিতাস নদীর উপর নির্মিত হয়েছে এশিয়ার সর্ববৃহৎ ওয়াই আকৃতির শেখ হাসিনা সেতু। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ গণভবনে থেকে ভিডিও কনফারেন্স মাধ্যমে সেতুটি উদ্বোধন করেন।

স্বপ্নের এ সেতু চালু হওয়ায় পাল্টে গিয়েছে চারদিকে নদীবেষ্টিত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরের দৃশ্য। নদী পাড়ি দেয়ার অপেক্ষার প্রহর আর গুণতে হবে না এখানকার সাধারণ মানুষকে। অল্পসময়ে সারাদেশের সঙ্গে সড়ক যোগাযোগ এখন সময়ের ব্যাপার।

এশিয়ার বৃহত্তম এ ওয়াই সেতুতে বদলে যাবে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সবচেয়ে সম্ভাবনাময় বাঞ্ছারামপুরের অর্থনীতির চাকা। সেতুটি ওয়াই আকৃতির হওয়ায় এটি ‘ওয়াই সেতু’ নামে ইতিমধ্যেই পরিচিত হয়ে উঠেছে।

ত্রি-মোহনার দুই অংশে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার ভুরভুরিয়া ও চরলহনিয়া, অপরটি পশ্চিম অংশে কুমিল্লার রামকৃষ্ণপুর বাজার এবং মুরাদনগর উপজেলা স্পর্শ করেছে।

স্থানীয়রা মনে করছেন, সেতুটি চালু হওয়াতে কুমিল্লার মুরাদনগর ও হোমনার সঙ্গে বাঞ্ছারামপুরের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার দূরত্ব কমে আসছে। নদী-নালা ও খাল-বিল বেষ্টিত বাঞ্ছারামপুর অঞ্চলের মানুষের যাতায়াতের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগের অবসান হয়েছে।

সেতুটি দেশের একমাত্র ওয়াই সেতু এবং যার দৈর্ঘ্য প্রায় ৭৭১ মিটার এবং প্রস্থ ৮ দশমিক এক শূন্য মিটার। এটি নির্মাণ করতে ব্যয় হয়েছে ৯৯ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। সেতুটি নির্মাণের ফলে ওই তিন উপজেলার অন্তত পাঁচ লাখ মানুষ উপকৃত হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

‘ওয়াই আকৃতিতে’ নির্মিত বাঞ্ছারামপুরের সেতুটি ওই এলাকার সঙ্গে হোমনা ও মুরাদপুরের যোগাযোগের পথ সুগম করবে। সেই সঙ্গে বাঞ্ছারামপুরের সঙ্গে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের যোগাযোগ তৈরি হবে।

শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন :


Designed By BanglaNewsPost