Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
Filter by Categories
English
Lead 1
Lead 2
Lead 4
Lead 5
Lead3
অন্য পত্রিকার খবর
অন্য পত্রিকার খবর ১
অন্য পত্রিকার খবর ২
অন্য পত্রিকার খবর ৩
আরও সংবাদ
ইসলাম
বিবিধ
ভিডিও নিউজ
মৌলিক
শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন :

এসএসসি পরীক্ষা-২০১৯
প্রশ্নপত্র ফাঁসের খবর পেলে ফ্রি কল করুন ৯৯৯ নম্বরে(ভিডিও)


প্রকাশিত :২১.০১.২০১৯

নিউজ ডেস্ক: মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষা সুশৃঙ্খল করতে নানামুখী পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার। বিভিন্ন বোর্ড পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে প্রশ্ন ফাঁস চক্রকে ধরতেও নানা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

প্রশ্নপত্র ফাঁস বা এই সংক্রান্ত কোন গুঞ্জন শুনলে যে কেউ ৯৯৯ নম্বরে কল করে জানাতে পারবেন। এতে একদিকে যেমন শিক্ষার মান বৃদ্ধি পাবে, অন্যদিকে শিক্ষার্থীসহ সংশ্লিষ্টদের এক ফোনেই উপযুক্ত উদ্যোগ গ্রহণ করবে সরকার।

আসন্ন এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস ঠেকাতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে একাধিক উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। যার মধ্যে ৯৯৯-এ কল করে তথ্য প্রদান অন্যতম।

এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বর্তমান সরকার এসএসসি পরীক্ষার্থীদের কথা বিবেচনায় রেখে এই সুবিধা চালু করেছে। যার মাধ্যমে কেউ যদি হোয়াটস অ্যাপ, ভাইবার বা ফেসবুকের কোন গ্রুপে প্রশ্ন ফাঁস করে বা কেউ প্রশ্ন ফাঁসে সঙ্গে জড়িত আছে বলে মনে হলে দেশের নাগরিক হিসেবে সেই খবর ৯৯৯ নম্বরে কল করলে তাৎক্ষণিক সমাধান পাওয়া যাবে। একটি কলের মাধ্যমে নিকটস্থ থানায় যোগাযোগ করে অপরাধীকে আইনের আওতায় এনে উপযুক্ত সাজা প্রদান করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ প্রসঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, যদিও বিগত কয়েক বছর প্রশ্ন ফাঁসের কোন খবর আসেনি। প্রশ্ন ফাঁসের গুঞ্জন একটা ব্যাধির আকার ধারণ করছে। শুধু প্রশ্ন ফাঁসকারীই নয় বর্তমানে প্রশ্ন ফাঁসকারীর অভিভাবককে আমরা সাজার আওতায় আনবো। সঙ্গে এই চক্রের সাথে জড়িত সবাইকে সাজা প্রদান করা হবে। শুধু তাই নয়, যিনি এই প্রশ্ন সংগ্রহ করবেন তাকেও শাস্তি প্রদান করা হবে। এর সাজা ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তড়িৎগতিতে দেয়া হবে। পাবলিক পরীক্ষাসমূহ (অপরাধ সংক্রান্ত) ১৯৮০/৯ (খ) ধারায় গ্রেপ্তার করে ২ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হবে।

ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিস  ‘৯৯৯’এ কল সেন্টারটি বাংলাদেশ পুলিশের অধীনে দেশের বিপুল জনগোষ্ঠীর জরুরি সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ১০০ কল-টেকার এজেন্ট, ১৯ জন ডিসপ্যাচার ও ৮ জন সুপারভাইজারের মাধ্যমে দৈনিক তিন শিফটে ২৪ ঘণ্টায় পরিচালিত হয়। জরুরি সেবা কার্যক্রমে একই সময়ে ১২০ জন সাহায্য প্রার্থী কথা বলতে পারবেন। ৯৯৯ এ কল করতে কোনও টাকা খরচ হবে না। মোবাইল ফোনে টাকা না থাকলেও বিপদগ্রস্ত যেকোন নাগরিক দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে ৯৯৯- এর মাধ্যমে পুলিশসহ অন্যান্য জরুরি সেবা সংস্থাগুলোর সাহায্য নিতে পারবেন। প্রশ্ন ফাঁসের তথ্য প্রদান ছাড়াও কোনও অপরাধ সংঘটিত হতে দেখলে, প্রাণনাশের আশঙ্কা দেখা দিলে, কোনও হতাহতের ঘটনা চোখে পড়লে, হতাহতের আশঙ্কা তৈরি হলে, আশেপাশে দুর্ঘটনা ও আগুনের ঘটনা ঘটলে ৯৯৯ এ বিনামূল্যে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ কল করতে পারেন।

শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন :


Designed By BanglaNewsPost