Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
Filter by Categories
English
Lead 1
Lead 2
Lead 4
Lead 5
Lead3
অন্য পত্রিকার খবর
অন্য পত্রিকার খবর ১
অন্য পত্রিকার খবর ২
অন্য পত্রিকার খবর ৩
আরও সংবাদ
ইসলাম
বিবিধ
ভিডিও নিউজ
মৌলিক
শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন :

নির্দেশ অমান্য করে কোচিং খোলা রাখলে ব্যবস্থা নেবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী


প্রকাশিত :২৯.০১.২০১৯

নিউজ ডেস্ক: আগামী ২ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হতে যাচ্ছে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষা। আসন্ন এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষাকে নির্বিঘ্ন ও শান্তিপূর্ণ করতে ২৭ জানুয়ারি থেকেই কার্যকর করা হয়েছে সারা দেশের কোচিং সেন্টার বন্ধের আদেশ। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আদেশে পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে কোচিং সেন্টারগুলো বন্ধের বিষয়টি মনিটরিং করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিশেষ টিম।

এদিকে সরকারি আদেশ উপেক্ষা করে রাজধানীর কিছু কোচিং সেন্টার গোপনে তাদের কার্যক্রম চালাচ্ছে বলে তথ্য মিলেছে। জানা গেছে, নির্দেশ অমান্য করে কোন কোচিং যদি খোলা রাখা হয় তবে সেই কোচিংয়ের কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে গত ২০ জানুয়ারি পরীক্ষা গ্রহণ সংক্রান্ত আইনশৃঙ্খলা কমিটির বৈঠকের পর শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ঘোষণা দিয়েছিলেন, পরীক্ষা শুরুর সাত দিন আগে থেকে শেষ পর্যন্ত (এক মাস) দেশের সকল কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখা হবে। সেই মোতাবেক ২৭ জানুয়ারি থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশের সব কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে।

জানা গেছে, কোচিং সেন্টার বন্ধের নির্দেশ আসলেও সরকারি সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে রাজধানীর কতিপয় কোচিং সেন্টার গোপনে তাদের কার্যক্রম চালাচ্ছে। ঢাকার বাইরেও বিভিন্ন স্থানে কোচিং চালু রাখার তথ্য এসেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও শিক্ষা বোর্ডের হাতে। প্রথম দিন ঢাকা, ময়মনসিংহ, রংপুর, খুলনা, চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে কোচিং সেন্টার খোলা ছিল।  রাজধানীর ফার্মগেট ও মোহাম্মদপুর এলাকার প্রত্যাশা কোচিং সেন্টারসহ বেশকিছু কোচিং সেন্টার খোলা রাখা হয়েছে বলেও অভিযোগ এসেছে বোর্ডের কর্মকর্তাদের কাছে।

এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, এরইমধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জোর তৎপরতা শুরু করেছে। যারা নির্দেশ অমান্য করে কোচিং খোলা রাখবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এমনকি আমরা ধরেই নেব, ওই কোচিং সেন্টারগুলো প্রশ্নফাঁস সংক্রান্ত গুজবের সঙ্গে জড়িত। ফলে কোচিং খোলা রাখার পাশাপাশি প্রশ্নফাঁস চক্রের সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ফলে কোচিং সেন্টার কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে সজাগ হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।

শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন :


Designed By BanglaNewsPost